মঙ্গলবার,১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ অপরাহ্ন

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ১৩ লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ১৯ ৫৫

পটুয়াখালী প্রতিনিধি-

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় খেপুপাড়া সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুর রহিমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ১৩ লক্ষ টাকা আত্মসাত ও প্রতারণার অভিযোগ সম্পর্কিত বিষয়ে সহকারী কমিশনারকে (ভূমি) ৪০ দিনের মধ্যে তদন্তর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট শোভন শাহরিয়ারের আদালত বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) এ আদেশ প্রদান করেন।

আদালত ও মামলা সূত্রে জানা যায়, প্রধান শিক্ষক আবদুর রহিমসহ ৫ জন কুয়াকাটার ব্যবসায়ী মিলন হাওলাদার ও তার ব্যবসায়ী বন্ধুর নিকট থেকে ২০১৬ সালের ২০ আগষ্ট লতাচাপলি মৌজার ৪০ শতাংশ জমি বিক্রয়ের জন্য ৩০০ টাকার নন জুডিসিয়াল ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে ১৩ লক্ষ টাকা গ্রহন করেন। এরপর দীর্ঘদিনেও বাদীর পাওনা টাকা ও তার অনুকূলে উক্ত পরিমান সম্পত্তির দলিল রেজিষ্ট্রী করে দেননি।

বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধানের লক্ষে ইতোপূর্বে লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে মহিপুর থানা পুলিশ উদ্দোগ নিয়েও কোন ফল হয়নি। পরবর্তীতে ইউএনও কলাপাড়াকে বিষয়টি জ্ঞাত করার পর তিনি ফৌজদারী মামলা করার পরামর্শ দেয়ায় ভুক্তভোগী মিলন হাওলাদার আদালতে বৃহস্পতিবার প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে খেপুপাড়া সরকারী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুর রহিম বাদীর অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মামলায় বর্নিত ১৩ লক্ষ টাকা সে পাবেনা। টাকার পরিমান আরও কম হবে। তবে এটি সমাধান করা হবে বলে জানান তিনি।

কলাপাড়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) অনুপ দাশ বলেন, এ বিষয়ে তিনি জ্ঞাত নন। আদালতের আদেশ পেয়ে নির্দেশিত সময়ের মধ্যে তদন্ত কার্যক্রম সম্পন্ন করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

আন্দোলন৭১/গোফরান/জিএ

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2018 Andolon71
Theme Developed BY Rokonuddin