মঙ্গলবার,১৩ এপ্রিল, ২০২১ অপরাহ্ন

গরুর আগে ছুটছে মুরগি

রিপোর্টারের নাম: আন্দোলন৭১
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৭ মার্চ, ২০২১ ১৭ ৫২
ছবি-সংগৃহীত

রাজধানীর পাইকারি এবং খুচরা বাজারে মুরগির দাম বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। দামটা যেন আগুনে হাত দেয়ার মতো অবস্থা হয়েছে। এবার সে আগুন আরও উত্তপ্ত করেছে শবেবরাত।

শুক্রবার (২৬ মার্চ) রাজধানীর বাজারগুলোতে সব ধরনের মুরগির দাম বেড়েছে। কেজিপ্রতি ব্রয়লার মুরগি খুচরা বিক্রি হচ্ছে ১৬০-১৬৫ টাকায়, লাল লেয়ার মুরগি কেজিপ্রতি ২১০-২২৫ টাকায়, দেশি মুরগির কেজি ৫৫০ টাকা এবং আর পাকিস্তানি কক মুরগির কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ৩শ টাকার উপরে। ৮০০ গ্রাম ওজনের সোনালি মুরগির পিস ২৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

করোনাকালে অনেকে বাজারে যাওয়া থেকে বিরত থাকতেই অনলাইনে শপ করছে। বিভিন্ন অনলাইন সাইট পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, ৫০০ গ্রামের একটি সোনালিকা মুরগির দাম ৩২০ টাকা। সেই হিসাবে প্রতি কেজি মুরগির দাম হয় ৬৪০ টাকা। আর দেশি মুরগির কেজি ৭৭৫ টাকার মতো। গরুর মাংসের কেজিপ্রতি ৫৬৯ টাকা। এই হিসাবে মুরগির দাম গরুর মাংসকে ছাড়িয়েছে।

এদিকে বাজার ঘুরে দেখা যায়, একদিনের ব্যবধানে ব্রয়লার কেজিতে বেড়েছে ১০ টাকা। আর লাল লেয়ার মুরগি কেজিপ্রতি ৩০ থেকে ৩৫ টাকা বেড়েছে। আর পাকিস্তানি কক মুরগির দাম কেজিতে বেড়েছে ৩০ টাকা পর্যন্ত। দেশি মুরগির কেজিতে বেড়েছে ৫০ টাকা।

এর আগের দিন (বৃহস্পতিবার) ব্রয়লার মুরগির কেজি ছিল ১৫০-১৫৫ টাকা, পাকিস্তানি কক মুরগির কেজি ১৩০-১৪০ টাকা, লাল লেয়ার মুরগির কেজি ১৮০-১৯০ টাকা, দেশি মুরগির কেজি ৫০০ টাকা।

প্রতি বছর পবিত্র শবেবরাতের আগে ব্রয়লার মুরগি ও গরুর মাংসের দাম কিছুটা বাড়ে। দাম বাড়ার কারণে সম্পর্কে ব্যবসায়ীরা জানান, রাজধানীর বাজারগুলোতে মুরগি কম আসায় দামও বেড়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2018 Andolon71
Theme Developed BY Rokonuddin